স্ত্রীকে নৌকার এজেন্ট করায় বিবাদ, ধস্তাধস্তিতে স্বামী নিহত

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

পাথরঘাটা (বরগুনা): বরগুনার পাথরঘাটায় স্ত্রী নৌকার এজেন্ট হওয়ায় স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা কাটাকাটি, ধস্তাধস্তির একপর্যায়ে আরিফ হোসেন (২৮) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরিফের স্ত্রী রাহিমা বেগম, শাশুড়ি পারভীন বেগম, শশুর হানিফকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।

রোববার (৭ জানুয়ারি) বিকেল ৪টার দিকে পাথরঘাটা পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে।  

আরিফ কাকচিড়া ইউনিয়নের কামারহাট এলাকার আমজাদ হোসেনের ছেলে।আরিফ ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালাতেন এবং শশুর বাড়িতে স্ত্রী ও সন্তান নিয়ে বসবাস করতেন।

স্ত্রী রাহিমা বলেন, পাথরঘাটা পৌরসভার সুবর্না সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভোট কেন্দ্রে নৌকার এজেন্ট ছিলাম।তিনি ভোট দিয়ে আমাকে কেন্দ্র থেকে বাড়িতে নিয়ে আসে। বাড়িতে আসার পরে আমি কেন এজেন্ট ছিলাম এ নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়।একপর্যায়ে উভয়ের মধ্যে ধস্তাধস্তি হলে হঠাৎ মারা যাযন তিনি।  

নাম প্রকাশ না করার শর্তে প্রতিবেশীরা জানান, দুপুরের দিকে হঠাৎ স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে তর্ক হয়। একপর্যায়ে নিহতের শশুর ৪ নম্বর ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. হানিফ ও তার স্ত্রী পারভিনও‌ তর্কে লিপ্ত হয়। পরে উভয়ের মধ্যে ধস্তাধস্তিতে নিহত হয় আরিফ।

পাথরঘাটা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ার হোসেন বলেন, প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের শ্বশুর শাশুড়ি ও স্ত্রীকে আটক করা হয়েছে। স্ত্রী রহিমা বেগমের তথ্যমতে নৌকার এজেন্ট হওয়াতে মারধরের ঘটনা ঘটে।  

তিনি আরও বলেন, শশুর হানিফকে ভোট কেন্দ্র থেকে এবং স্ত্রী ও শাশুড়িকে বাড়ি থেকে আটক করা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *