চাকরি নিয়ে বিদেশ যেতে আগ্রহীদের জন্য সুখবর

মালদ্বীপ, সংগৃহীত ছবি

অবৈধ অভিবাসীদের থামাতে ২০১৯ সালে বাংলাদেশের ওপর এক বছরের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে মালদ্বীপের পূর্ববর্তী সরকার। দীর্ঘ চার বছর পর অবশেষে বাংলাদেশি কর্মীদের জন্য আবারও উন্মুক্ত হলো মালদ্বীপের ভিসা। তবে এ যাত্রায় সুযোগ পাবেন দক্ষ কর্মীরা। অদক্ষ শ্রমিক আসা আপাতত স্থগিত থাকবে।

রোববার (১৭ ডিসেম্বর) মালদ্বীপের হোমল্যান্ড সিকিউরিটি অ্যান্ড টেকনোলজি মন্ত্রণালয় এক ঘোষণায় এই তথ্য জানিয়েছে।

ঐ সময় দেশটির তৎকালীন অর্থ মন্ত্রী ফাইয়াজ ইসমাইল জনিয়েছিলেন, মালদ্বীপের আইন অনুযায়ী বিদেশি রাষ্ট্রের (বাংলাদেশের) এক লাখ শ্রমিক থাকার সুযোগ রয়েছে। যদিও ২০১৯ সালের গণনা করে বাংলাদেশের শ্রমিকদের সংখ্যা দেখা যায় দেড় লাখে। যাদের একটি বড় অংশ অবৈধভাবে দেশটিতে অবস্থান করছে।

তিনি জানান, মালদ্বীপে প্রবেশের ক্ষেত্রে কোটা শেষ হয়ে যাওয়ায় নতুন করে কাউকে নিতে পারেনি দেশটি। সেসময় কাজের ভিসায় ১ লাখ ১৪ হাজারের বেশি মালদ্বীপে প্রবেশ করে, যাদের মধ্যে ৬৩ হাজার অবৈধভাবে বসবাস করছিল। যদিও বাংলাদেশি কর্মীদের ওপর শ্রম নিষেধাজ্ঞায় নতুন সুযোগ তৈরি হয় ভারত, শ্রীলঙ্কা নেপালসহ বেশ করেকটি দেশের। মালদ্বীপে ক্রমাগত বাড়তে থাকে এসব দেশগুলোর কর্মীর সংখ্যা।অবৈধ অভিবাসীদের সমস্যা মোকাবেলায় ইমিগ্রেশন এখন বড় ধরনের অভিযান চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। দেশটিতে অবৈধ অভিবাসীদের সমস্যার দ্রুত সমাধান খুঁজতে অভিযান শুরু করেছে ইমিগ্রেশন। এর মধ্যে অভিযান চালিয়ে বাংলাদেশের প্রায় ১৫০ জন শ্রমিক আটক করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *