বিড়ালকে বাঁচাতে গিয়ে অটোরিকশাকে ট্রাক্টরের ধাক্কা, নিহত ১

শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি

প্রকাশ : ০৬ জুলাই ২০২৪,

দুর্ঘটনাকবলিত সিএনজি অটোরিকশা ও লড়ি-ট্রাক্টর। ছবি: প্রতিনিধি

গাজীপুরের শ্রীপুরে বিড়ালকে বাঁচাতে গিয়ে মাটি বহনকারী লড়ি-ট্রাক্টরের ধাক্কায় সিএনজি অটোরিকশা থেকে ছিটকে পড়ে যাত্রী পোশাক শ্রমিক মফিজুল ইসলাম (৩২) নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় নিহতের শিশু ছেলে মাহিদ (৭) এবং সিএনজিঅটো চালক মোস্তফা কামাল (৩৮) আহত হয়েছে।

শনিবার (৬ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৪টায় কাওরাইদ ইউনিয়নের সোনাব গ্রামের (চৌধুরী ঘাট) ব্রিজের পশ্চিম পাশে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মফিজুল ইসলাম ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার বাসিল গ্রামের আবু সাঈদের ছেলে। তিনি ওই উপজেলার একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। আহত শিশু মাহিদ নিহতের ছেলে এবং সিএনজিচালক মোস্তফা কামাল উপজেলার কাওরাইদ ইউনিয়নের বিধাই গ্রামের আব্দুল কাদিরের ছেলে। দুর্ঘটনায় পোশাক শ্রমিক ঘটনাস্থলেই নিহত হন এবং আহতদেরকে স্থানীয়রা ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছেন।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকবর আলী খান প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে জানান, মফিজুল ইসলাম তার স্ত্রী ও সাত বছরের শিশু ছেলেকে নিয়ে শ্রীপুর উপজেরার কাওরাইদে শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে যাচ্ছিলেন। জৈনা বাজার-কাওরাইদ সড়কের সোনাব এলাকার চৌধুরী ঘাট ব্রিজের কাছে পৌঁছলে একটি বিড়াল সড়ক পার হচ্ছিল। এ সময় বিড়ালকে বাঁচাতে গিয়ে দ্রুত গতির সিএনজি অটোরিকশা ব্রেক কষলে পেছনে থাকা মাটি বহনকারী লড়ি-ট্রাক্টরের ধাক্কা লাগে। এতে অটোরিকশা থেকে ছিটকে পড়ে পোশাক শ্রমিক যাত্রী মফিজুল ইসলাম পাকা সড়কে পড়ে মাথায় গুরুতর আঘাত পান। ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। দুর্ঘটনায় সিএনজি অটোচালক মোস্তফা কামাল এবং নিহতের শিশু ছেলে মাহিদ গুরুতর আহত হয়। স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে। ঘটনার পর লড়ি-ট্রাক্টরের চালক পালিয়ে গেছে। পুলিশ লড়ি ও দুর্ঘটনাকবলিত সিএনজি অটোরিকশা জব্দ করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *